আজ থেকে দায়িত্বে নতুন নির্বাচন কমিশন

আসন্ন নির্বাচনকে সুষ্ঠু করতে ও পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করতে আজ থেকে নির্বাচন কমিশন ভবনে দায়িত্ব পালন শুরু করবেন সদ্য নিয়োগ পাওয়া সিইসি কাজী হাবিবুল আউয়াল ও চার নির্বাচন কমিশনার।

রবিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি বিকেলে শপথ গ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল। এ সময় বাকি চার নির্বাচন কমিশনারও উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় নির্বাচন একটি চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করে বলেন, সব কমিশনারদের সঙ্গে আলোচনা করে সোমবার আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করা হবে। দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করার ক্ষেত্রে সবার সহযোগিতা ও দোয়া চান।

তিনি বলেন, সব দলের অংশগ্রহণে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন করতে পারব বলে আশা করছি। শুধু ইসি চাইলেই সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব না। তাদের অংশিদারিত্বপূর্ণ নির্বাচন করাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য।

সবার সহযোগিতা লাগবে। সর্বোচ্চ ভালোটা দেওয়ার চেষ্টা থাকবে আমাদের। এদিন বিকালে শপথ নিয়েছেন সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ ইসির বাকি চার সদস্য।

প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী তাদের এ শপথ বাক্য পাঠ করান। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়ালের নেতৃত্বাধীন নতুন নির্বাচন কমিশন (ইসি) শপথ গ্রহণ করেন।

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সার্চ কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে সিইসি হিসেবে সাবেক জ্যেষ্ঠ সচিব কাজী হাবিবুল আউয়ালকে নিয়োগ দেন। সংবিধানে বর্ণিত আইনের মাধ্যমে নিয়োগ পাওয়া প্রথম সিইসি হলেন হাবিবুল আউয়াল, যার নেতৃত্বে গঠন করে দেওয়া হয়েছে পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নতুন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও নির্বাচন কমিশনার (ইসি) হিসেবে প্রস্তাবিত ১০ জনের নাম নিয়ে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে জমা দিতে বঙ্গভবনে যায় সার্চ কমিটি।

তবে সার্চ কমিটির প্রধান আপিল বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান বৈঠকে যাননি। সার্চ কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন-হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামান, সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইন, মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক মুসলিম চৌধুরী, মনোরোগ বিশেষজ্ঞ, অধ্যাপক ও কথাসাহিত্যিক আনোয়ারা সৈয়দ হক এবং সাবেক নির্বাচন কমিশনার মুহাম্মদ ছহুল হোসাইন।

Source link

admin

Read Previous

মাদক মামলায় পরীমনির আবেদনের শুনানি আজ

Read Next

প্রেমিকাকে হত্যা করে প্রেমিকের আত্মহত্যা