এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতল ইংল্যান্ড

player

সময়টা একেবারেই বাজে যাচ্ছে শ্রীলংকা ক্রিকেট দলের। একের পর এক হার দেখছে দলটি। ইংল্যান্ড সফরে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে শ্রীলংকা।

এমন পরিস্থিতিতে শ্রীলংকা ক্রিকেটকে বাঁচাতে আকুতি জানান দেশটির কিংবদন্তি তারকা সনৎ জয়সুরিয়া। এবার এক ম্যাচ হাতে রেখেই ওয়ানডে সিরিজের শিরোপা নিশ্চিত করল ইংল্যান্ড। ইংলিশ কন্ডিশনে আগের তুলনায় ভালো খেললেও এ ম্যাচেও ইংলিশদের কাছে পাত্তাই পায়নি শ্রীলংকা।

লন্ডনের কেনিংটন ওভালে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে আগে ব্যাট করে ২৪১ রান সংগ্রহ করে শ্রীলংকা। জবাবে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ৪২ বল আগেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। অর্থাৎ ৮ উইকেটে শ্রীলংকাকে হারালেন স্বাগতিকরা।

শুক্রবারের ম্যাচে ২৪২ রানের তাড়ায় তিনটি অর্ধশতক এসেছে ইংল্যান্ড দল থেকে। দুই ওপেনার জনি বেয়ারস্টো ও জেসন রয় ১৩ ওভারে ৭৬ রান তোলেন। ২৯ রান করেন আউট হন বেয়ারস্টো। তবে আগ্রাসী ব্যাটিং করে ঠিকই হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন জেসন রয়।

চামিথা করুনারত্নের বলে আউট হওয়ার আগে ১০ চারের মারে খেলা ৫২ বলে ৬০ রান করেন রয়। দুই ওপেনার সাজঘরে ফেরার পর দুর্দান্ত ব্যাট চালিয়ে যান জো রুট ও এইউন মরগ্যান। তৃতীয় উইকেট জুটিতে ১৪০ রান যোগ করে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন এ দুই অভিজ্ঞ ইংলিশ তারকা।

লংকান বোলারদের পাড়ার ক্রিকেটারদের মতো খেলে ৮৭ বলে ৬৮ রান করেন রুট। ৮৩ বলে ৭৫ রানে অপরাজিত থাকেন অধিনায়ক মরগ্যান। ৭ ওভার বাকি থাকতেই দলের জয় নিশ্চিত করেন তারা। শ্রীলংকার পক্ষে একটি করে উইকেট শিকার করেছেন হাসারাঙ্গা ও করুনারত্নে। বাকি আর কোনো বোলার উইকেট পাননি।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ইংলিশ পেসার স্যাম কুরানের তোপে পড়ে শ্রীলংকা। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে তিন বলের ব্যবধানে অধিনায়ক কুশল পেরেরাকে শূন্য রানে ফেরান। আভিষ্কা ফার্নান্দো ২ রান যোগ করে এলবিডব্লিউ।

চতুর্থ ওভারে দলীয় ১২ রানের মাথায় পাথুম নিশাঙ্কাকে ৫ রানে বোল্ড করেন বাঁহাতি স্যাম কুরান। ২১ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে সফরকারীরা। সেখান থেকে পঞ্চম উইকেটে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার সঙ্গে ৬৫ আর দাসুন শানাকার সঙ্গে ষষ্ঠ উইকেটে ৭৮ রানের দুটি জুটিতে দলকে ভিত গড়ে দেন ধনঞ্জয়া। হাসারাঙ্গা করেন ২৬ রান।

দলীয় ১৬৪ রানের মাথায় ৯১ রানে আউট হন ধনাঞ্জয়া। এর পর হাল ধরেন শানাকা। ৬৭ বলে ২ চার আর ১ ছক্কায় ৪৭ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। এর পর চামিথা করুনারত্নের ২১, বিনুরা ফার্নান্দোর ১৭ রানে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেটে ২৪১ রান জমা করতে পারে শ্রীলংকা।

ইংলিশ বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল স্যাম কুরান। ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ে ৪৮ রানে ৫টি উইকেট নিয়েছেন এই পেসার। আরেক পেসার ডেভিড উইলি ৬৪ রান খরচায় ৪ উইকেট পেয়েছেন।

Source link

admin

Read Previous

কন্যাসন্তানের মা হলেন অভিনেত্রী নাবিলা

Read Next

দেশের মানুষকে বাঁচাতে হবে: ফখরুল