কমেছে সোনার দাম

gold jewellery

মুদ্রাস্ফীতি ও ভূরাজনৈতিক ঝুঁকির কারণে বিনিয়োগের নিরাপদ মাধ্যম হিসেবে খ্যাত সোনার কদর বাড়ার কথা। তবে শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) মূল্যবান এ ধাতুটির দাম কমে আসে।

এদিকে চাহিদার বিপরীতে সরবরাহ সংকটের আশঙ্কায় বেড়েছে প্যালাডিয়ামের দাম। আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রকাশিত প্রতিবেদনে থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

আন্তর্জাতিক বাজারে স্পট সোনার দাম শূন্য দশমিক ৪ শতাংশ কমে প্রতি আউন্স ১ হাজার ৮৩১ দশমিক ৬০ ডলারে নেমেছে।

এবং ইউএস গোল্ড ফিউচারের দর শূন্য দশমিক ৬ শতাংশ কমে প্রতি আউন্স ১ হাজার ৮৩১ দশমিক ৮০ ডলারে দাঁড়িয়েছে। এদিকে রূপার দাম শূন্য দশমিক ৬ শতাংশ কমে ২৪ দশমিক ২৮ ডলারে দাঁড়িয়েছে।

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বিশ্লেষক সুকি কুপার একটি বিবৃতিতে ২০২২ সালে সোনার দাম গড়ে আউন্স প্রতি ১ হাজার ৭৮৩ ডলার হওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছেন।

রাশিয়ার ইউক্রেনে সম্ভাব্য আক্রমণ নিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নে উদ্বেগ বা মার্কিন নিষেধাজ্ঞার সম্ভাব্য সম্প্রসারণের আশঙ্কায় রয়েছে বিনিয়োগকারীরা। এতে এই সপ্তাহে সোনার দাম প্রায় শূন্য দশমিক ৮ শতাংশ বেড়েছে।

এদিকে রাশিয়া প্যালাডিয়ামের একটি প্রধান উৎপাদক হওয়ায় ধাতুটির সরবরাহ চেইনে আঘাত হানার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এতে প্যালাডিয়ামের দর ২ দশমিক ২ শতাংশ বেড়ে প্রতি আউন্স ২ হাজার ১০৫ দশমিক ১৮ ডলারে উঠে এসেছে।

এই সপ্তাহে ধাতুটির দাম বেড়েছে প্রায় ১২ দশমিক ১ শতাংশ। এদিকে প্ল্যাটিনামের দাম শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ কমে ১ হাজার ৩৩ দশমিক ৮৬ ডলারে স্থির হয়েছে।

Source link

admin

Read Previous

মাদক-সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে র‌্যাবের ভূমিকা প্রশংসনীয়

Read Next

বাংলাদেশের ব্র্যান্ডিংয়ে হবে রোডম্যাপ