কাতারে তালেবানের সঙ্গে ভারতের বৈঠক

কাতারের রাজধানী দোহায় ভারতের রাষ্ট্রদূত আফগানিস্তানের বর্তমান শাসক তালেবান নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন বলে জানিয়েছে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

তালেবান কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর গোষ্ঠীটির সঙ্গে ভারতের এটাই প্রথম সংলাপ।ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তালেবানের অনুরোধের প্রেক্ষিতে কাতারের রাজধানী দোহায় তালেবানের রাজনৈতিক কার্যালয়ের প্রধান শের মোহাম্মদ আব্বাস স্তানিকজাইয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন ভারতীয় রাষ্ট্রদূত দ্বীপক মিত্তাল।

রয়টার্স লিখেছে, ভারতের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের সঙ্গে তালেবানের ঘনিষ্ঠ মিত্রতার বিষয়টি নিয়ে দিল্লি দীর্ঘদিন ধরে উদ্বিগ্ন। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, উভয়পক্ষ আফগানিস্তানে অবস্থানরত ভারতীয়দের সুরক্ষার ব্যাপারে আলোচনা করেছেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ভারতবিরোধী জঙ্গিরা যেন আফগানিস্তানের মাটি ব্যবহার করে ভারতীয় স্বার্থে আঘাত করতে না পারে ভারতের এমন আশঙ্কার কথাও তালেবান নেতৃত্বের কাছে জানিয়েছেন কাতারে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত দ্বীপক মিত্তাল।

দুই দশক পর আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ তালেবানের হাতে যাওয়ায় দেশটিতে ভারতের স্বার্থ ‘চরম সংকটে’ পড়েছে বলে অভিমত অনেক রাজনৈতিক বিশ্লেষকের। তারা বলছেন, এখন আফগানিস্তানে ‘সবচেয়ে সংকটে’ থাকা দেশগুলোর একটি ভারত।

তালেবান কাবুল ঘিরে ফেলার পরপরই নয়াদিল্লির সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রাখা আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি দেশত্যাগ করেন। কাবুলে সরকার পতনের পর কূটনীতিক, বিদেশি সংস্থার কর্মীদের আফগানিস্তান ছাড়ার হিড়িকের তালিকায় নাম ছিল ভারতীয়দেরও।

এর কিছুদিন আগেই আফগানিস্তানে ভারতের সহায়তায় নতুন করে তৈরি একটি ড্যাম অর্থাৎ বাঁধে তালেবানের হামলায় অন্তত ১০ জন নিরাপত্তারক্ষী মারা যায়। হেরাত প্রদেশে ওই জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রটি আফগানিস্তানে ভারতের সবচেয়ে বড় প্রকল্প।

আফগান-ভারত সম্পর্কের প্রতীক হিসেবে বিবেচিত ওই বাঁধে হামলার ঘটনায় তালেবানের উদ্দেশ্য নিয়ে ভারতের মধ্যে আশঙ্কা-সন্দেহ বেড়ে যায়। যদিও এখন তালেবানের পক্ষ থেকে ভারতের সাথে সুসম্পর্কের ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।

Source link

admin

Read Previous

বঙ্গবন্ধু সব সময় বঞ্চিত মানুষের পাশে থেকেছেন: শিল্পমন্ত্রী

Read Next

আলো আসবেই