ভিন্নমত পোষণকারীরা নির্যাতিত হচ্ছে: ফখরুল

বাংলাদেশে ভিন্নমত পোষণকারীরা বিভিন্নভাবে নির্যাতিত-নিপীড়িত হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার ৩ মার্চ দুপুরে রাজধানীর বাসাবো বৌদ্ধ মন্দিরে ধর্মরাজিক বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ মহাসংঘনায়ক শুদ্ধানন্দ মহাথের-এর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা ১৯৭১ সালে স্বাধীনতাযুদ্ধ করেছিলাম সত্যিকার অর্থে একটা গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র নির্মাণ করার জন্য। যেখানে সমস্ত ধর্মাবলম্বী মানুষদের ধর্মীয় স্বাধীনতা নিশ্চিত হবে।

দুঃখের কথা আজকে আমরা সেই জায়গা থেকে বহুদূরে সরে এসেছি। আজকে আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করা হয়েছে, নূন্যতম অধিকার হরণ করা হয়েছে।

বাক স্বাধীনতা হরণ করা হয়েছে। আজকে ভিন্নমত পোষণকারীরা এখানে বিভিন্নভাবে নির্যাতিত-নিপীড়িত হচ্ছে।তিনি বলেন, বৌদ্ধ ধর্ম হলো একটি শান্তির ধর্ম, বৌদ্ধ ধর্ম কল্যাণের ধর্ম।

আমাদের দুর্ভাগ্য আজকে সারাবিশ্বে শান্তি বিঘ্নিত হচ্ছে। বিশ্বে যুদ্ধ হচ্ছে। একদিকে মিয়ানমার থেকে রোহিঙ্গারা চলে এসেছে। অন্যদিকে কাশ্মীরের মানুষ নির্যাতিত হচ্ছে।

এখন এ মুহূর্তে ইউক্রেনের শিশু-নারীরা রাশিয়ার আগ্রাসনের ফলে দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে। সমগ্র পৃথিবীতে আজকে অশান্তি। বিএনপির মহাসচিব বলেন, শুদ্ধানন্দ মহাথের-এর মহাপ্রয়াণে আমরা প্রার্থনা করি পরলোকে তিনি যেন শান্তিতে থাকেন এবং একইসঙ্গে এ দেশের মানুষ যেন হারিয়ে যাওয়া অধিকার ফিরে পায়,

মানুষ যেন শান্তিতে থাকে, বাক স্বাধীনতা, গণতান্ত্রিক অধিকার, ধর্মীয় স্বাধীনতা, বেঁচে থাকার অধিকার যেন ফিরে পায়, সেই প্রার্থনা আমরা করবো। আমরা প্রার্থনা করবো সৃষ্টিকর্তা যেন পৃথিবীকে শান্তিময় করে দেন।

বাংলাদেশকে যেন শান্তিময় করে দেন। আমরা যেন সত্যিকার অর্থে একটি কল্যাণমূলক রাষ্ট্রে পরস্পরের প্রতি ভ্রাতৃত্বমূলকভাবে যেন বাস করতে পারি।

Source link

admin

Read Previous

জীবনের সবচেয়ে সুন্দর মুহূর্ত যাচ্ছে: পরীমণি

Read Next

আমেরিকার ওপর ভরসা করে আমার সরকারের পতন হয়েছে