যশোরে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী আটক

যশোরে মনোয়ারা বেগম মর্জিনা (৩২) নামের এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে যশোর পুলিশ।

শনিবার সদর উপজেলার কাশিমপুর ইউনিয়নের বহাল নগর গ্রামে স্বামীর বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

স্ত্রীকে হত্যা সন্দেহে এলাকাবাসির সহযোগিতায় পুলিশ নিহতের স্বামী শহিদুল ইসলামকে আটক করেছে। নিহত মনোয়ারা বেগম মর্জিনার ছেলে রাকিব হোসেন জানান, রাতে আমি ঘুমিয়ে ছিলাম।

মধ্যরাতে ঘুম থেকে উঠে দেখি, আমার মায়ের মৃতদেহ বারান্দায় শুইয়ে রাখা হয়েছে। জিজ্ঞাসা করলে বাবা বলেন, তোর মা গলায় রশি দিয়ে মারা গেছে।

মৃত মর্জিনা বেগমের ভাগ্নে কাজী শরীফ আহমেদ জানান, হঠাৎ রাতে আমরা ফোন পাই। বলা হয় আমার খালা গলায় রশি দিয়ে মারা গেছেন। খবর পেয়ে আমরা সেখানে যেয়ে দেখি খালাকে শুইয়ে রাখা হয়েছে।

কাজী শরীফ আহমেদ বলেন, খালু শহিদুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরেই আমার খালাকে নির্যাতন করে আসছিলেন। বিষয়টি আমাদের পরিবারের সকলেই জানে। খালা আত্মহত্যা করেননি, তাকে হত্যা করা হয়েছে।

ফুলবাড়ী পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এস আই কানু চন্দ্র জানান, ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ উদ্ধার করে যশোর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এছাড়া প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গৃহবধূর স্বামী শহিদুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোন মামলা দায়ের করা হয়নি।

Source link

admin

Read Previous

লঙ্ঘন নয়, মানবাধিকার রক্ষা করছে র‌্যাব

Read Next

ইভ্যালিকাণ্ডে তাহসান-মিথিলা-ফারিয়াসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা