সামনে ভয়াবহ খারাপ দিন আসছে: ম্যাক্রো

Emanuel Macron france

ইউক্রেনে যুদ্ধ এড়ানো সম্ভব বলে মনে করেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো। তিনি ইউক্রেনের সংকট কমাতে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

তবে বৈঠক শেষে তিনি বলেছেন, সামনে ভয়াবহ খারাপ দিন আসছে। খবর বিবিসির। সম্প্রতি রাশিয়া ইউক্রেইন সীমান্তে এক লাখের বেশি সেনা সমাবেশ করেছে।

ধারণা করা হচ্ছে, ইউক্রেইনে আগ্রাসন চালাতেই রাশিয়া সীমান্তে শক্তি বাড়াচ্ছে। রাশিয়া অবশ্য বারবার বলছে, ইউক্রেইনে হামলার কোনও পরিকল্পনা তাদের নেই।

কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র এবং পশ্চিমা দেশগুলো এ নিয়ে আশঙ্কা এবং উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। রাশিয়াকে রুখতে যুক্তরাষ্ট্র ও এর নেটো মিত্রদেশগুলো ইউক্রেইনে সামরিক সহযোগিতা বাড়াচ্ছে

এবং মস্কোকে নিষেধাজ্ঞা আরোপসহ নানা শাস্তিমূলক পদক্ষেপের মুখে পড়ার হুমকিও দিয়ে যাচ্ছে। মস্কোও পশ্চিমা দেশগুলোর কাছে একগাদা দাবি জানিয়েছে।

যেগুলোর মধ্যে ইউক্রেইনকে নেটোর প্রতিরক্ষা জোটে অন্তর্ভুক্ত না করা এবং পূর্ব ইউরোপের দেশগুলোতে নেটোর সেনা হ্রাসের দাবিও রয়েছে।

পশ্চিমা দেশগুলো রাশিয়ার এসব দাবি মানতে একেবারেই রাজি নয়। বরং তারা মস্কোর সঙ্গে পরমাণু অস্ত্র তৈরি কমিয়ে আনার বিষয়ে আলোচনা এবং নতুন করে চুক্তি করতে আগ্রহী।

এদিকে মস্কো ইউক্রেইনে আগ্রাসন চালালে রাশিয়া থেকে জার্মানিতে সরাসারি গ্যাস সরবরাহের পাইপলাইন নর্ড স্ট্রিম ২ বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

সোমবার হোয়াইট হাউজে জার্মানির চ্যান্সেলর ওলাফ শুলজের সঙ্গে বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট বাইডেন এই হুঁশিয়ারি দেন।

বাইডেন বলেন, রাশিয়া যদি অভিযান চালায়… আবারও, তাহলে নর্ড স্ট্রিড ২ বলে আর কিছুর অস্তিত্ব থাকবে না। আমরা এটা শেষ করে দেব।

কীভাবে এই কাজটি করা হবে এমন প্রশ্নের সুনির্দিষ্ট জবাব না দিয়ে বাইডেন বলেন, আমি আপনাদের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, আমরা এটা করতে পারব।

Source link

admin

Read Previous

এটি সার্চ কমিটি নয়, ‘আওয়ামী খাস কমিটি’: রিজভী

Read Next

৯ মিলিয়ন ডলার সহায়তা দেবে জাপান