৫ বছরের জন্য প্রশান্ত মহাসাগরে যাচ্ছে দুটি ব্রিটিশ যুদ্ধজাহাজ

ব্রিটিশ নৌবাহিনীর দুটি যুদ্ধজাহাজ যুক্তরাজ্য ত্যাগ করেছে। এই জাহাজ দুটি আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে আর যুক্তরাজ্যে ফিরবে না।

যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, মঙ্গলবার আফ্রিকার পশ্চিম উপকূল থেকে জাহাজ দুটি যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিম উপকূলে রওনা হয়েছে।

এগুলো ব্রিটিশ নৌবাহিনীর চোখ ও কান হিসেবে ব্যবহৃত হবে। জাহাজ ‘এইচএমএস স্পে’র কমান্ডিং অফিসার লেফটেন্যান্ট কমোডর বেন ইভানস বলেন, ২ হাজার টন এবং ৩০০ ফুট লম্বা এইচএমএস স্পে ‘এইচএমএস টামার’ এর সঙ্গে মিশনে যাবে। ২০২৬ সালের আগে জাহাজ দুটি দেশের উপকূলে ফিরবে না।

প্রশান্ত মহাসাগর এবং ভারত সাগরে টহল ছাড়াও যুদ্ধ জাহাজ দুটি বেইজিং সাগরের সুদূর উত্তর এবং নিউজিল্যান্ডের ও অস্ট্রেলিয়ার প্রদেশ তাসমানিয়ার সুদূর দক্ষিণে টহল দেবে। এই এলাকার কেন্দ্রে যুক্তরাজ্যের প্রধান মিত্র যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চীনের উত্তেজনা বাড়ছে।

যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ওই এলকায় জাহাজ দুটি আমাদের নৌবাহিনীর চোখ ও কান হিসেবে ব্যবহৃত হবে। যুক্তরাজ্যের মিত্রদের সঙ্গে কাজ করার পাশাপাশি এই যুদ্ধ জাহাজ নিরাপত্তা টহল, মাদক পাচার, ছিনতাই, সন্ত্রাস এবং অন্যান্য অবৈধ কাজ দেখভাল করবে।

চলতি বছরের মার্চে যুক্তরাজ্য সামরিক এবং বৈদেশিক নীতি পর্যালোচনা করছে। এতে আগামী দশকে যুক্তরাজ্য প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে তৎপরতা বাড়ানো এবং চীনের কাছ থেকে যে ঝুঁকি আসছে সেটা মাথায় রেখে চলার নীতি নিয়েছে।

ব্রিটিশ এই যুদ্ধজাহাজ দুটি প্রশান্ত মহানসাগরে স্থায়ী ঘাঁটি গাড়বে না, বরং এগুলো যুক্তরাজ্যের মিত্র দেশগুলোর ঘাঁটি এবং বন্দরে থাকবে। জাহাজে স্বাভাবিক ক্রুদের পাশাপাশি ৫২ জন রয়েল মেরিন সেনা রয়েছে।

Source link

admin

Read Previous

সৎ না হলে রাজনীতিবিদ-আমলা জাতির জন্য অভিশাপ

Read Next

যশোরে হত্যা মামলায় দুজন রিমান্ডে